কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়

কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়

কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়? আল্লাহ তা‘আলা ইরশাদ করেন ,যাকাত শুধুমাত্র ফকির, মিসকিন (যাকাত আদায়কারী কর্মচারীবৃন্দু এবং ইসলামের প্রতি অনুরাগী লোকদের  আকৃষ্ট করার জন্য ,দাসত্ব থেকে মুক্তি এবং ঋণগ্রস্থদের ঋণ পরিশধের জন্য যুদ্ধ সামগ্রীহীন ইসলামী যোদ্ধাদের অস্ত্র ক্রয়ের জন্য এবং নিঃস্ব মুসাফিরকে দিতে হবে) এ আট প্রকার ব্যক্তি যাকাতের মাল গ্রহণ করতে পারবে। এ আট প্রকার হতে যাদেরকে তাদের মন জয় করার জন্য দেয়া হতো তারা বাদ পড়বে। যেহুতু আল্লাহ তা‘আলা…

Read More

ফল ও ফসলের  যাকাত

ফল ও ফসলের  যাকাত

ফল ও ফসলের  যাকাতঃ ইমাম আবু হানীফা (র) বলেন যমিনে উৎপাদিত ফল ও ফসল কম হোক আর বেশী হোক এবং নদী কিংবা ঝরনার পানি দ্বারা তা উৎপন্ন হোক বা বৃষ্টির পানি দ্বারা উৎপন্ন হোক উভয় অবস্থাতেই উৎপাদিত ফসলের এক দশমাংশ যাকাত দেয়া ওয়াজিব।কিন্তু কাঠ বাশঁ ও ঘাসের ক্ষেত্রে এক দশমাংশ যাকাত নেই। ইমাম আবু উসুফ ও মুহাম্মাদ (র) বলেন ,উৎপাদিত ফসল পাঁচ আওসাকের কম হলে ওশর তথা যাকাত ওয়াজীব নয়। নবী করীম (সাঃ)-এর সা অনুযায়ী…

Read More

ব্যবসার মালের যাকাত

ব্যবসার মালের যাকাত

ব্যবসার মালের যাকাতঃ ব্যবসায়ের মালামালের ওপর যাকাত ওয়াজিব হবে, তা যে প্রকারেরই হোক না কেন। যখন তার মূল্য সোনা অথবা রুপার হিসাবে নেসাব পরিমাণ হবে যাকাত দেয়ার মূল্য সোনা ও রুপার যে মূল্য ধরা হলে ফকির ও মিসকিনরা লাভবান হয় তাই নির্ধারণ করবে। আর ইমাম আবু ইউসুফ (রঃ) বলেন যা দ্বারা সেগুলো ক্রয় করা হয়েছে তা দ্বারাই মূল্য ধরা হবে। অতঃপর যদি তা মুদ্রা মান ব্যতীত ক্রয় করা হয়ে থাকে তাহলে শহরের অধিক প্রচলিত মু্দ্রা…

Read More

স্বর্ণ ও রুপার যাকাত

স্বর্ণ ও রুপার যাকাত

স্বর্ণ ও রুপার যাকাতঃ স্বর্ণের যাকাতঃ স্বর্ণের পরিমান বিশ মিসকাল অর্থাৎ সাড়ে সাত তোলার কম হলে তাতে যাকাত দিতে হবে না। কাজেই যখন বিশ মিসকাল পরিমান স্বর্ণ কারো মালিকানায় এক বছর অতিক্রম হয় তাতে অর্ধ মিসকাল দিতে হবে। অতঃপর প্রত্যেক চার মিসকালের জন্য অর্ধ মিসকাল তথা দু কিরাত যাকাত দিতে হবে। আর ইমাম আবু হানীফা (রঃ)-এর মতে চার মিসকালের কম হলে যাকাত নেই। সাহেবাইন (রঃ) বলেন বিশ মিসকালের ওপর যা বেশি হবে তার যাকাত হিসাব…

Read More

সূদ ও ইসলাম

সূদ ও ইসলাম

সূদ ও ইসলামঃ সূদ প্রসঙ্গে ইসলামের অবস্থান সবচেয়ে কঠোর ও অনমনীয়। এ ব্যাপরে সুরা বাক্বারাতে মহান আল্লাহর ঘোষণা করেছেন।হে মুমিনগণ তোমরা আল্লাহকে ভয় করো এবং সূদের যে বাকি অংশ বাকী আছে তা ছেড়ে দাও, যদি তোমরা প্রকৃত মুমিন হও। যদি তোমরা তা না করো তাহলে আল্লাহ ও তাঁর রসুল (সাঃ)- এর পক্ষ হতে ঘোষনা শুনে রাখ। আর যদি তোমরা তওবা কর তবে তোমাদের মূলধন ফিরিয়ে নিতে পারবে। না তোমরা যুলুম করবে, না তোমাদের প্রতি যুলুম…

Read More

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি?

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি?

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি? সরকারের কোনো আইন ইসলামী আইনের বিরোধী না হলে এবং জনকল্যানকর হলে সে আইন মেনে চলাই কর্তব্য।( আবু দাউদ হাঃ২৬২৬, তিরমিযী হাঃ৩৭০৭)। তাই জাতীয় রাজস্ব আয়ের মাধ্যম হিসাবে সরকারীভাবে যে ট্যাক্স ধার্য করা হয় তা ফাঁকি দিয়ে ব্যবস্যা-বাণিজ্য করা ঠিক হবে না।কেননা রাষ্ট্রীয় স্বার্থ মানেই জনস্বার্থ।তাই জনস্বার্থ ক্ষতি করা ইসলাম অনুমোদন করে না।সাধারনভাবে একজন ঈমাণদার ব্যক্তি কখনো অন্যের ক্ষতিসাধন করে আপন স্বার্থ হাসিল করতে পারে না। সুতরাং…

Read More

যাকাত অনাদায় কারীর শাস্তি

যাকাত অনাদায় কারীর শাস্তি

যাকাত অনাদায় কারীর শাস্তিঃ যে সব কাজ করলে মানুষ বড় ক্ষগ্রস্ত হয় এবং তওবা ছাড়া পাপ ক্ষমা হয় না। যাকাত অনাদায় তার মধ্যে একটি বড় পাপ। যাকাত আদায় না করলে মানুষের রুযী হারাম হয়ে যাবে।আর রুযী হারাম হলে কোন ইবাদত আল্লাহর কাছে কবুল হয় না। (মুসলিম, মিশকাত হাঃ২৭৬০:বাংলা ৬ষ্ট খন্ড হাঃ২৬৪০;ক্রয়-বিক্রয় অধ্যায়)। আল্লাহ তা‘আলা বলেন, যাদেরকে আল্লাহ তা‘আলা নিজ অনুগ্রহে অর্থ-সম্পদ দান করেছেন, তারা কৃপণতা করে। তারা যেন ধরণা না করে যে তাদের অর্থ-সম্পদ তাদের…

Read More

ক্বদর রাত্রি জাগরণ ও ফিতরের আলোচনাঃ

ক্বদর রাত্রি জাগরণ ও  ফিতরের আলোচনাঃ

ক্বদর রাত্রি জাগরণ ও ফিতরের আলোচনাঃ ক্বদরের রাত্রির জন্য বিশেষ কোন ছালাতের কথা হাদীসে বর্ণীত হয়নি। তাই অন্যান্য রাতের মতই ছালাত আদায় করবে। তবে ক্বদরের রাত্র্রিগুলোতে ছালাতকে বেশী বেশী কুরআন তেলাওয়াত ও তাসবীহ-তাহলীলের মাধ্যমে দীর্ঘ করবে। যেমন রসুল (সাঃ) তিন রাত করেছিলেন। (তিরময হাঃ৮০৬, মশকাত হাঃ১২৯৮)।এই রাতে বেশী বেশী ছালাত আদায়ের কোন সুযোগ নেই। কারণ রসুল (সাঃ) রমযান বা রমযানের বাইরে রাত্রিতে ১১ রাক‘আতের অধিক নফল ছালাত আদায় করতেন না।(বুখারী হাঃ২০১৩)। শুধু ২৭-এর রাত্রে নয়…

Read More

সোনা রুপা গচ্ছীত সম্পদ ও ফসলের যাকাত

সোনা রুপা গচ্ছীত সম্পদ ও ফসলের যাকাত

সোনা রুপা গচ্ছীত সম্পদ ও ফসলের যাকাতঃ তোমরা সালাত আদায় কর এবং যাকাত প্রদান কর। তোমরা যে উত্তম কাজ নিজেদের জন্য অগ্রে প্রেরণ করবে তা আল্লাহর নিকটে পাবে। নিশ্চয়ই তোমরা যা কর আল্লাহ তা দেখছেন। (সূরা বাকারাঃ১১০) যাকাত ইসলামের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ রোকন। ঈমানের পর সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য ইবাদত হল সালাত ও যাকাত। কুরআন মজীদে বহু স্থানে সালাত-যাকাতের আদেশ করা হয়েছে এবং আল্লাহর অনুগত বান্দাদের জন্য অশেষ ছওয়াব  রহমত ও মাগফিরাতের পাশাপাশি আত্মশুদ্ধিরও প্রতিশ্রুতি দেওয়া…

Read More

উট গরু ছাগল যাকাত এর আলোচনা

উট গরু ছাগল যাকাত এর আলোচনা

উট গরু ছাগল যাকাত এর আলোচনাঃ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণীত, রসুল (সাঃ) মু‘আয (রাঃ)-কে ইয়ামানে প্রেরণ করলেন। এর পর রাবী পূর্ণ হাদীস রেওয়ায়েত করেন। তাতে এক স্থঅনে রয়েছে; নিশ্চয় আল্লাহ তা‘আলা তাদের উপর তাদের ধন-সম্পদ থেকে সদকা (যাকাত প্রদান) ফরয করেছেন,সেটা নেওয়া হবে তাদের ধনীদের কাছ থেকে এরপর তা দিয়ে দেয়া হবে গরীবদের মধ্যে অর্থ্যাৎ বন্ঠন করে দেয়া হবে। (বুখারী হাঃ১৩৯৫,৪৩৪৭) (মুসলিম হাঃ১৯) (নাসাঈ হাঃ২৪৩৫)। হযরত আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) থেকে বর্ণীত।…

Read More
1 2