কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়

কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়

কাকে যাকাত দেয়া জয়েয এবং কাকে দেয়া জায়েয নয়? আল্লাহ তা‘আলা ইরশাদ করেন ,যাকাত শুধুমাত্র ফকির, মিসকিন (যাকাত আদায়কারী কর্মচারীবৃন্দু এবং ইসলামের প্রতি অনুরাগী লোকদের  আকৃষ্ট করার জন্য ,দাসত্ব থেকে মুক্তি এবং ঋণগ্রস্থদের ঋণ পরিশধের জন্য যুদ্ধ সামগ্রীহীন ইসলামী যোদ্ধাদের অস্ত্র ক্রয়ের জন্য এবং নিঃস্ব মুসাফিরকে দিতে হবে) এ আট প্রকার ব্যক্তি যাকাতের মাল গ্রহণ করতে পারবে। এ আট প্রকার হতে যাদেরকে তাদের মন জয় করার জন্য দেয়া হতো তারা বাদ পড়বে। যেহুতু আল্লাহ তা‘আলা…

Read More

ফল ও ফসলের  যাকাত

ফল ও ফসলের  যাকাত

ফল ও ফসলের  যাকাতঃ ইমাম আবু হানীফা (র) বলেন যমিনে উৎপাদিত ফল ও ফসল কম হোক আর বেশী হোক এবং নদী কিংবা ঝরনার পানি দ্বারা তা উৎপন্ন হোক বা বৃষ্টির পানি দ্বারা উৎপন্ন হোক উভয় অবস্থাতেই উৎপাদিত ফসলের এক দশমাংশ যাকাত দেয়া ওয়াজিব।কিন্তু কাঠ বাশঁ ও ঘাসের ক্ষেত্রে এক দশমাংশ যাকাত নেই। ইমাম আবু উসুফ ও মুহাম্মাদ (র) বলেন ,উৎপাদিত ফসল পাঁচ আওসাকের কম হলে ওশর তথা যাকাত ওয়াজীব নয়। নবী করীম (সাঃ)-এর সা অনুযায়ী…

Read More

সূদ ও ইসলাম

সূদ ও ইসলাম

সূদ ও ইসলামঃ সূদ প্রসঙ্গে ইসলামের অবস্থান সবচেয়ে কঠোর ও অনমনীয়। এ ব্যাপরে সুরা বাক্বারাতে মহান আল্লাহর ঘোষণা করেছেন।হে মুমিনগণ তোমরা আল্লাহকে ভয় করো এবং সূদের যে বাকি অংশ বাকী আছে তা ছেড়ে দাও, যদি তোমরা প্রকৃত মুমিন হও। যদি তোমরা তা না করো তাহলে আল্লাহ ও তাঁর রসুল (সাঃ)- এর পক্ষ হতে ঘোষনা শুনে রাখ। আর যদি তোমরা তওবা কর তবে তোমাদের মূলধন ফিরিয়ে নিতে পারবে। না তোমরা যুলুম করবে, না তোমাদের প্রতি যুলুম…

Read More

পানির ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও অসুখ বৃদ্ধীর আশস্কায় ফরয গোসল করতে না পারলে করনীয়

পানির ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও অসুখ বৃদ্ধীর আশস্কায় ফরয গোসল করতে না পারলে করনীয়

পানির ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও অসুখ বৃদ্ধীর আশস্কায় ফরয গোসল করতে না পারলে করনীয়? পানির ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও যদি কেউ অসুখ বৃদ্ধর আশস্কায় ফরয গোসল করতে না পারে, তাহলে কি তার সালাত ক্বাযা করবে নাকি তায়াম্মুম করে সালাত আদায় করবে? পানির ব্যবহারে রোগ বৃদ্ধির ভয় থাকলে তায়াম্মুম করে সালাত আদায় করবে। ক্বাযা করার সুযোগ নাই। জাবের (রাঃ) থেকে বর্ণীত তিনি বলেন আমরা কোনো এক সফরে বের হলাম। আমাদের একজনের মাথায় পাথর লেগে মাথা ফেটে যায়। অতঃপর…

Read More

রাসুল (সাঃ)-এর চল্লিশটি সহীহ হাদীস

রাসুল (সাঃ)-এর চল্লিশটি সহীহ হাদীস

রাসুল (সাঃ)-এর চল্লিশটি সহীহ হাদীসঃ ১)  রসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেন- যে ব্যক্তি আমার চল্লিশটি হাদীস আমার উম্মতের কাছে পৌঁছাবে  তার জন্য আমি কিয়ামতের দিন বিশেষ ভাবে সুপারিশ করব। ২)  মানুষের মধ্যে যারা মৃত্যুকে বেশি স্মরণ করে এবং উহার জন্য প্রস্তুতি নেয় তারাই সবচেয়ে বুদ্ধিমান। ৩) প্রত্যেক জিনিসের যাকাত আছে, আর দেহের যাকাত হচ্ছে রোজা। ৪)  যে তার সময় আল্লাহর জন্য ব্যয় করে না  তার জন্য জীবন অপেক্ষা মৃত্যু শ্রেয়। ৫)  যারা সবসময় ইস্তিগফার (ক্ষমা প্রার্থনা) করে…

Read More

দরুদে ইব্রাহীম পাঠের পূর্বে বিসমিল্লাহ পড়তে হবে কি?

দরুদে ইব্রাহীম পাঠের পূর্বে বিসমিল্লাহ পড়তে হবে কি?

দরুদে ইব্রাহীম পাঠের পূর্বে বিসমিল্লাহ পড়তে হবে কি? না, দুরুদে ইব্রাহীম পাঠের পূর্বে বিসমিল্লাহ পড়তে হবে না। কেননা তা রসুল (সাঃ) হতে প্রমাণিত নয়। বরং রসুল (সাঃ) আমাদেরকে যেভাবে পড়তে বলেছেন ঠিক সেভাবেই পড়তে হবে। আবু মূসা ইবনে ত্বালহা তার পিতা থেকে বর্ণনা করেন, তিনি বলেন আমরা রসুল (সাঃ)-কে জিজ্ঞেস করলাম হে আল্লাহর রসুল ! আমরা আপনার উপর কীভাবে দরুদ পড়ব? তিনি বললেন এভাবে পড়বে- উচ্চারণঃ আল্লা-হুম্মা ছাল্লি আলা মুহাম্মাদিউ ওয়া আলা আলি মুহাম্মাদিন কামা…

Read More

অশ্লীল পোশাক তৈরী করা হয় এমন গার্মেন্টসে কাজ করা যাবে কি?

অশ্লীল পোশাক তৈরী করা হয় এমন গার্মেন্টসে কাজ করা যাবে কি?

অশ্লীল পোশাক তৈরী করা হয় এমন গার্মেন্টসে কাজ করা যাবে কি? না এমন পোশাক কারখানা বা কম্পানিতে চাকরি করা যাবে না। কেননা এতে অন্যায় কাজে সাহায্য সহযোগিতা করা হবে, যা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। মহান আল্লাহ তা‘আলা বলেন তোমরা  পরস্পরে নেকী ও খোদাভীরুতার পথে সাহায্য সহোযোগীতা কর, আর তোমরা পাপাচার ও সীমাঙ্ঘনের পথে একে অপরকে সাহায্য করো না। আল্লাহকে ভয় করতে থাক। নিশ্চয়ই আল্লাহ তা‘আলা কঠিন শাস্তি প্রদানকারী।(সুরা মায়েদা আয়াত নং ২)। আল্লাহর আনুগত্যমূলক সকল কাজে একে…

Read More

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি?

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি?

সরকারকে ট্যাক্স না দিয়ে ব্যবস্যা করা জায়েয হবে কি? সরকারের কোনো আইন ইসলামী আইনের বিরোধী না হলে এবং জনকল্যানকর হলে সে আইন মেনে চলাই কর্তব্য।( আবু দাউদ হাঃ২৬২৬, তিরমিযী হাঃ৩৭০৭)। তাই জাতীয় রাজস্ব আয়ের মাধ্যম হিসাবে সরকারীভাবে যে ট্যাক্স ধার্য করা হয় তা ফাঁকি দিয়ে ব্যবস্যা-বাণিজ্য করা ঠিক হবে না।কেননা রাষ্ট্রীয় স্বার্থ মানেই জনস্বার্থ।তাই জনস্বার্থ ক্ষতি করা ইসলাম অনুমোদন করে না।সাধারনভাবে একজন ঈমাণদার ব্যক্তি কখনো অন্যের ক্ষতিসাধন করে আপন স্বার্থ হাসিল করতে পারে না। সুতরাং…

Read More

দু‘আ করার সময় বলা হয় মুহাম্মাদ (সাঃ) এর রওজায় পৌঁছে দাও এটা বলা যাবে কি?

দু‘আ করার সময় বলা হয় মুহাম্মাদ (সাঃ) এর রওজায় পৌঁছে দাও এটা বলা যাবে কি?

দু‘আ করার সময় বলা হয় মুহাম্মাদ (সাঃ) এর রওজায় পৌঁছে দাও এটা বলা যাবে কি? রসুল (সাঃ) বলেছেন যে ব্যক্তি এমন আমল করল যে ব্যাপারে আমাদের কোনো নির্দেশনা নেই, তা প্রত্যাখ্যান। (সহীহ মুসলিম হাঃ ১৭১৮)। উল্লেখিত দু‘আ করার বিষয়টি ভারত উপমহাদেশের বিদ‘আতীদের নবআবিষ্কৃত পদ্ধতি। রসুল (সাঃ) হতে এর পক্ষে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় না। এমনকি মৃর্ত্যুর পরে তাঁর কবরে ছওয়াব পৌঁছানোর ব্যাপারেও তিনি কোনো নির্দেশনা দেননি। সাহাবীগণও এভাবে কখনো দু‘আ করেছেন এ মর্মে কোনো প্রমান…

Read More

আহলে বায়তের নামের শেষে আলাইহিস সালাম বলা যাবে কি?

আহলে বায়তের নামের শেষে আলাইহিস সালাম বলা যাবে কি?

আহলে বায়তের নামের শেষে আলাইহিস সালাম বলা যাবে কি? সাধারণত নবীগণের নামের শেষে আলাইহিস সালাম বলা হয়, এবং ছাহাবীগণের নামের শেষে আলাইহিস সালাম বলা হয়। কিন্তু  বিভিন্ন হাদীসের পাতায় আলী, ফাতেমা, হুসাইন (রাঃ)-এর নামের শেষে আলাইহিস সালাম ব্যাবহার দেখা যায়। এটাকে পূজি করে অনেকে অনেক বাড়াবাড়ি করে থাকেন।যেমন শী‘আ সম্প্রদায় ও তাদের অনুসারিরা। অথচ নবীগণ সাহাবীগণ সাহাবায়ে কেরাম, তাবেঈনে এযামসহ সকল মুমিনের ক্ষেত্রে আলাইহিস সালাম বলা যেতে পারে। কেননা এমন কোনো দলীল পাওয়া যায় না…

Read More
1 2 3 5