স্বাভাবিক ত্বক চেনার উপায় কি?

স্বাভাবিক ত্বক চেনার উপায় কি?

প্রতিদিন গাদাগুচ্ছের নামীদামি ব্র্যান্ডের ক্রিম, সিরাম ময়শ্চারাইজ়ার মুখে মাখছেন, অথচ ত্বকের অবস্থার হেরফের নেই একটুও এরকম হলে সত্যিই মনটা খুব খারাপ হয়ে যায়। মনে হয় টাকা পরিশ্রম সময় সবই নষ্ট হল। তবে একেবারে হাল ছেড়ে দেওয়ারও যেহেতু মানে হয় না তাই একটু প্রডাক্টগুলোর দিকে নজর দিয়ে দেখুন তো এমন কি হতে পারে যে সব প্রডাক্ট আপনি ব্যবহার করছেন তা আদৌ আপনার ত্বকের উপযোগীই নয়? কাজেই ফল যে পাবেন না সেটাই স্বাভাবিক।
আশ্চর্য লাগলেও এটাই সত্যি অনেক মেয়েই এমন প্রডাক্ট ব্যবহার করেন যা তাঁদের ত্বকের জন্য সঠিকই নয়। এর কারণ তাঁরা নিজেদের ত্বকের ধরন সম্পর্কেই ঠিকমতো জানেন না ত্বক তৈলাক্ত, শুষ্ক, নাকি কম্বিনেশন এটা বুঝতে বুঝতেই সময় চলে যায় আর ভুল প্রডাক্টের ব্যবহারে ত্বকের অবস্থা উত্তরোত্তর খারাপ হতে শুরু করে।



এ ধরনের ত্বকে সাধারণত একটু হালকা তৈলাক্ত  ভাব থাকে। ত্বকের  বিন্যাস হয় অত্যন্ত  মসৃণ এবং এতো সজজীব যে   লোমকুপ পর্যন্ত  অদৃশ্য থাকে। স্বাভাবিক ত্বক খুব বেশিশ ভিজে বা তেল  তেলে হয় না। নাক ও কপপালের অংশের বেশ চকচকে ভাব থাকে। কিন্তু গলা ও দু‘চোখের কলোর অংশ অপেক্ষাকৃত কম চকচকে  হয়। সাধারনত এ ধরনের  ত্বক শিশুদের  ও সদ্য যৌবন  প্রাপ্ত তরুণীদের মধ্যে দেখতে পাওয়া যায়। তবে  সামান্য কয়েয়কজন ভাগ্যবতী মহিলাও  এ ধরনের ত্বকের অধিককাকারী হন। বিভিন্ন ত্বকের মধ্যে স্বাভাবিক ত্বকেই হচ্ছে  আর্দশ। স্বাভাবিক ত্বকের  যত্ন সহজে নেওয়া যায়।

আলোচনাটি ভালো লেগে থাকলে অনেক অনেক শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করবেন। আপনাদের এই সুন্দর কমেন্ট আমাদেরকে নতুন আলোচনা করতে মোটিভেট করে এবং সব সময় আলোর বাণীর সঙ্গে যুক্ত থাকবেন ধন্যবাদ।

Leave a Comment