যৌবনে বিপথে পরিচালিত হওয়ার কারণ?

যৌবনে বিপথে পরিচালিত হওয়ার কারণ?

যৌবন প্রাপ্তদের পথভ্রষ্ট হবার প্রধান কারণ হল অশিক্ষা ও কুশিক্ষা লাভ এবং কু-সংস্পর্শে গমন করা। পিতা-মাতা যদি তাদের সন্তানদেরকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলেন তাহলে এ অবস্থা হতে পরিত্রাণ পাওয়া যায়। এ জন্য সৎ সংঙ্গে বসবাস করার ব্যবস্থা করতে পারেন, তাদের সাথে যারা মিলিত হয় তারা যদি মার্জিত স্বাভাবের হয় তবেই আপনার সন্তান সঠিক ভাবে বেড়ে উঠবে এবং আনন্দময় যৌবন প্রাপ্তি ঘটতে পারে। তবে সেই সন্তানরা যৌবনকালে কোন সময় পথ ভ্রষ্ট হবে না।  আর যদি শৈশব অবস্থায় আপনার শিশুকে অসৎ সঙ্গে মেলামেশা ও কুশিক্ষা লাভ করাবার সুযোগ দেন, তবে তারা কখনো সৎ চরিত্রবাণ হতে পারবে না। অতএব শিশুকালে সন্তানদের প্রতি পিতা-মাতার বিশেষ দৃষ্টি কর্তব্য।

যৌবনকালে সঠিক ভাবে ব্যবহার করার জন্য যৌন কামনা-বাসনা পূরণের জন্য নর-নারীর দাম্পত্য জীবণকে পরিপূর্ণভাবে শান্তিময় ও সুখময় করবার জন্য স্রষ্টার সৃষ্টির ধারা অক্ষুন্ন রাখবার জন্য, পরম করুনাময় রব্বুল আলামিন নারী-পুরুষকে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ করে বৈধভাবে যৌন মিলনের সুযোগ দান করেছেন। ইসলামী শরীয়তের দৃষ্টিতে নারী পুরুষের বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে  বৈধভাবে মিলিত হবার এটাই সুন্দর পথ। বিবাহ ব্যতীত নারী-পুরুষের মিলন হলে উহা সম্পূর্ন হারাম হবে এবং এর জন্য পরকালে কঠিন শাস্তি ভোগ করতে হবে। দুনিয়ার জীবনেও সমাজে লাঞ্ছিত হতে হবে।

আলোচনাটি ভালো লেগে থাকলে অনেক অনেক শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করবেন। আপনাদের এই সুন্দর কমেন্ট আমাদেরকে নতুন আলোচনা করতে মোটিভেট করে এবং সব সময় আলোর বণী সঙ্গে যুক্ত থাকবেন  ধন্যবাদ।

Leave a Comment