মাসিক পিরিয়ড (হায়েয) বন্ধ হওয়ার পর মাঝে মাঝে রক্ত বের হলে করনীয় কী?

মাসিক পিরিয়ড (হায়েয) বন্ধ হওয়ার পর মাঝে মাঝে রক্ত বের হলে করনীয় কী?

মাসিক পিরিয়ড (হায়েয) এর রক্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর গোসল করে পবিত্র হয়ে সালাত আদায় করার সময় এবং মাঝে মধ্যে সামান্য রক্ত বের হলে সালাত আদায় করা যাবে কী? এমনতাবস্থায় করণীয় কী?

মহিলা তার পিরিয়ড (হায়েয) শেষে গোসল করার পর অথবা সালাত আদায়ের পরে হলুদ ফ্যাকাশে বা মেটে বর্ণের রক্ত দেখে তাহলে তা পিরিয়ড বা হয়েয নয়। ফলে  তাকে পুনরায় গোসল করা লাগবে না। বরং এটাতে অযু করলেই যথেষ্ট।

হযরত উম্মে আতিয়্যাহ (রাঃ) বলেন, পবিত্রতা অর্জনের পরে আমরা হলুদ ও ঘোলা রংয়ের রক্তকে কিছুই মনে করতাম না। (আবু দাউদ হাঃ৩০৭)।

অনুরুপভাবে পিরিয়ড (হায়েয) শেষে  গোসলের পর অথবা সালাতের পর যদি সামান্য দু-চার ফোটা রক্ত দেখা দেয় অথবা মাংস ধোয়া পানির মতো সামান্য রক্ত পরিলক্ষিত হয়, তবে সেটা হায়েয হিসাবে গণ্য হবে না এবং সেটার কারণে পুনরায় গোসল করতে হবে না, বরং অযু করলেই যথেষ্ট হবে।



হযরত আলী (রাঃ) বলেন, মহিলা হায়েয থেকে পবিত্র হওয়ার পর যদি মাংস ধোয়া পানি অথবা নাক দিয়ে পড়া রক্তের ফোটার মত অথবা তার চেয়ে কম-বেশি রক্ত দেখে তাহলে সে পানি ছিটিয়ে দিবে, অতঃপর অযু করবে এবং সালাত আদায় করবে, তাকে গোসল কররতে হবে না। তবে যদি ঘন ররক্ত দেখে তাহলে সেটার কারণ জরায়ুতে শয়তানের পদাঘাত (অর্থাৎ সেটা ইস্তিহাযা)। (মুসান্নাফ ইবনু আবী শাইবাহ হাঃ৯৯৪)।

আর যদি গোসলের পর অথবা সালাতের পর মহিলা একদিন দুদিন রক্ত বের হতে দেখে, তাহলে সেটাকেও হয়েয গণ্য করবে এবং নামায পড়বে না। অতঃপর রক্ত বনন্ধ হওয়ার পর গোসল করে পবিত্র হবে। তবে যদি পিরিয়ডের শেষ গোসলের পর অথবা সালাতের পর রক্ত চলতেই থাকে, তাহলে বুঝতে হবে সেটা ইস্তিহাযা।

আলোচ্য প্রশ্ন উত্তরগুলি ভালো লাগে অনেক শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করবেন। আপনাদের এই সুন্দর কমেন্ট আমাদেরকে নতুন প্রশ্ন উত্তর পোষ্ট করতে মোটিভেট করে এবং সব সময় আলোর বাণীর সঙ্গে যুক্ত থাকবেন ধন্যবাদ।

Leave a Comment