কথার শেষে ভালো থাকেন বলা যাবে কী?

কথার শেষে ভালো থাকেন বলা যাবে কী?

আল্লাহ তা‘আলা মানুষকে ভালো কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। একে অন্যকে ভালো কাজে সহযোগিতা করার কথা বলেছেন। আল্লাহ বলেন, হে ঈমানদারগণ! তোমরা পূণ্যশীলতা ও তাকওয়ার কাজে একে অপরকে সাহায্য কর। (সুরা মায়েদা আয়াত নং২)

কথার শেষে বা বিদায়ের সময় ভালো থাকেন শব্দটি বিনিময়ের মাধ্যমে শির্কে পতিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কেননা মানুষ নিজে নিজেই ভালো বা মন্দ থাকতে পারে না। বরং ভালো-মন্দের একমাত্র মালিক মহান আল্লাহ। উত্তম হবে সালাম দিয়ে বিদায় নেওয়া। হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) বলেন রসুল (সাঃ) বলেছেন, যখন তোমাদের কেউ কোনো মজলিসে যাবে সে সময় সালাম দিবে। যখন সেখান থেকে উঠে আসতে চাইবে তখনও সালাম দিবে। তবে এর প্রথমবারের সালাম দ্বিতীয়বারের সালামের চেয়ে বেশি অগ্রাধিকার যোগ্য নয়। ( আবু দাউদ হাঃ ৫২০৮, মিশকাত হাঃ ৪৬৬০)। তবে এভাবে বলা যায় যে আল্লাহ আপনাকে ভালো রাখুন।



মজলিস শেষে দো‘আঃ

সুবহা-নাকাল্লা-হুম্মা ওয়া বিহামদিকা, আশহাদু আন্ লা ইলা-হা ইল্লা আনতা আস্তাগফিরুকা ওয়া আতূবু ইলাইক।
এই দোয়া যে পড়ে তার মজলিস চলাকালীন সময়ে অনরথক কথাসমূহের গোনাহ মাফ করে দেওয়া হয়। এই দোয়া উক্ত গোনাহের কাফ্ফারা হয়ে যায়।

আলোচ্য প্রশ্ন উত্তরগুলি ভালো লেগে থাকলে অনেক অনেক শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করবেন। আপনাদের এই সুন্দর কমেন্ট আমাদেরকে নতুন প্রশ্ন উত্তর পোষ্ট করতে মোটিভেট করে এবং সব সময় আলোর বাণীর সঙ্গে যুক্ত থাকবেন ধন্যবাদ।

Leave a Comment